'সোঁদামাটি' সাহিত্য পত্রিকা ও 'ঐতিহাসিক মুর্শিদাবাদ' ফেসবুক গ্রুপের যৌথ উদ্যোগে এই ওয়েবসাইট।

কাটরা মসজিদ‬



সুবে বাংলার ক্ষমতা লাভের পরেই মুর্শিদাবাদের প্রথম নবাব মুর্শিদকুলি খাঁ একটি পূর্ণাঙ্গ মসজিদ, মসজিদ চত্বরে সমাধিস্থল, শিক্ষাকেন্দ্র কেন্দ্র ও বাজার নির্মাণের উদ্যোগ নেন। সেই মতো ১৭২৩ সালে ৫টি সুবৃহত্‌ গম্বুজ ও দুটি উচ্চ মিনার বিশিষ্ট বাংলার দ্বিতীয় বৃহত্তম এই মসজিদটি নির্মাণ করেন মক্কার মসজিদের অনুকরণে।

কাটরা মানে বাজার। কিন্তু বাজারটি বাস্তবায়িত হয়নি। তা সত্ত্বেও এখনও ওই এলাকা সবজি কাটরা মানে পরিচিত। ৫টি বিশাল গম্বুজের সাহায্যে যে সৌধ নির্মিত হয়েছিল, তার মধ্যে তিনটি ১৮৯৭ সালে ভূমিকম্পে ধ্বংস হয়ে যায়। ওই মসজিদের সম্মুখে বিস্তৃত চত্বরে ওঠার সিঁড়ির নীচে রয়েছে মুর্শিদকুলি খাঁর অনাড়ম্বর সমাধি। এই মসজিদের ভেতরে যে মাদ্রাসা ছিল, সেখানে বহু ছাত্র পড়াশোনা করতেন।


শেয়ার করুন

No comments:

Post a Comment